মঙ্গলবার , ডিসেম্বর ১ ২০২০
   মঙ্গলবার|১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ|১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
    ১৫ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
Breaking News

ময়মনসিংহ রাজনৈতিক অঙ্গনে কিংবদন্তি কে ?

একেএম ফখরুল আলম বাপ্পী চৌধুরী: দক্ষ-অদক্ষ, যোগ্য-অযোগ্য,স্বার্থান্বেষী সাংবাদিকদের কলমের ডগায় অনেক সময় কিংবদন্তি শব্দটি চলে আসলেই কি তারা কিংবদন্তি?

যে বনে সিংহ নেই, সেই বনে শিয়াল পন্ডিতগণ বিড়ালকে সিংহ বানায়। আয়তনে ছোট-বড় হলেও সিংহ-বিড়াল অনেকটাই একই রকম। তেমনি যোগ্য-অযোগ্য, ভালো-মন্দ মানুষগুলো দেখতে একই রকম।

ইদানিং ময়মনসিংহ গ্রুপিং রাজনীতিতে কিংবদন্তি শব্দটি নিয়ে সংখ্যা বাড়ানোর প্রচেষ্টায় ব্যস্ত নিজ নিজ অদক্ষ অনুসারীরা। যারা কিংবদন্তি শব্দের মানেই জানে না।

কিংবদন্তি অর্থ হলো যা লোক মুখে প্রচলিত, কালের নিয়মে জনশ্রুতিতে প্রসিদ্ধ। আরো সহজ করে বললে, যা লেখা হয়নি কোন পান্ডুলিপিতে, তবুও মানুষের মুখে মুখে, রূপকথার গল্পের সমান সেই কিংবদন্তি, অর্থাৎ অমরকীর্তি রচনাকারী হলেন কিংবদন্তি ব্যক্তিত্ব। যে ব্যক্তি তার কর্মগুণে এতটাই প্রসিদ্ধ যে, তার চর্চা দশকের পর দশক ধরে হয়ে আসছে অথবা হয়ে থাকবে। ইতিহাসের পাতার সাথে যিনি লোকজনের স্মৃতিতে অমর হয়ে আছেন বা থাকবেন তাঁরাই কিংবদন্তি। আর যারা নিজের জীবদ্দশায় কিংবদন্তি হয়ে উঠে, তাদেরকে জীবন্ত কিংবদন্তি হিসেবে আখ্যা দেওয়া হয়।

কিংবদন্তি হতে পারে একজন খেলোয়াড়, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, সাংবাদিক, লেখক-সাহিত্যিক, রাজনীতিবিদ। যে নিজের প্রতিভার আলো জ্বালিয়ে নিজের গন্ডি পেরিয়ে দিগন্ত থেকে দিগন্তে সুবিধা বঞ্চিত মানুষের পথ ও সমাজকে আলোকিত করে, যা হাজার বছর পরেও পথপ্রদর্শক হয়ে থাকে তারাই কিংবদন্তি, আলোকিত মানুষ।

আর একজন রাজনীতিবিদকে যখন প্যাকেজ কিংবদন্তি বানাতে চায় কতিপয় স্বার্থান্বেষী ব্যক্তিবর্গ তখন আলোচনা হয়ে উঠে হাস্যরঙ্গ। একজন রাজনীতিবিদ কিংবদন্তি হওয়ার আগে রাজনৈতিক নেতা হতে হয়। আমরা যাদেরকে নেতা ভাবছি তারা নেতা নন, তারা কথিত নেতা। নেতা হতে গেলে যা গুণাবলি ও যোগ্যতার প্রয়োজন তা ময়মনসিংহ রাজনীতির মাটিতে ওয়াচ ডগ ছেড়ে দিলেও খুঁজে পাওয়া যাবে কি একজন কিংবদন্তি ? বলার জন্যে যদি বলে থাকি বা প্রয়োজনে,স্বার্থের জন্যে, কথার কথা তুমিই নেতা, উত্তরে-দক্ষিণে, পূর্ব-পশ্চিমে নেতা আর নেতা, কর্মী নেই সুবিধাবাদী দালালরাই যখন কর্মী, তখন কিংবদন্তি রকম-সকম, আজ এইজন, কাল অন্যজন।

প্রকৃত নেতা একটি বিশেষ মানুষ নয়, অনেক মানুষের যোগফল একটি নেতা। যার মাঝে অনেক মানুষ বসবাস করে, সেই নেতা। অনেকেই মনে করে সাফল্য একটা বিশাল ব্যাপার, কোন সাফল্যের নাম নেতা নয়, সাফল্য একটা বৈশ্বিক বস্তুগত বিষয়। অনেক সময় চোর-চোট্টা-বাটপাররা বিশাল সাফল্য পায়, তাই বলেই কি তারা কিংবদন্তি, আলোকিত মানুষ ? 

নেতা হলো একটি কাজের পরিপূর্ণতা, মানবিক-সামাজিক দায়িত্ববোধের পরিপূর্ণতা। যে কাজের জন্যে আপনি নেতৃত্ব দিচ্ছেন সেই কাজ কতটুকু স্বচ্ছতা, দক্ষতা, সততার সহিত দায়িত্ব পালন করে পরিপূর্ণতা অর্জন করাই হলো একজন নেতার বৈশিষ্ট্য।

বর্তমান কথিত নেতারা নিজের আখের গুছিয়ে দিগন্তে পৌছে যায়, অবৈধ টাকা আর সম্পদ উপার্জনের মধ্য দিয়ে। রাজনৈতিক নেতারা এমন আলোর সড়ক থেকে হঠাৎ ছিটকে পড়ছে, নেতাদের মাঝে এমন অন্ধকার অনিশ্চয়তা টানপোড়ন। বলা যায় সহিংসতা, অনিশ্চয়তা, অর্থলোভ তাদেরকে গ্রাস করেছে। নেতৃত্ব এখন উপদ্রæপ বিপন্ন। চারদিকে হিংসা হানা-হানি, মৃত্যু উপত্যকা।

অস্থির রাজনীতি, অস্থিতিশীল নেতা।

ভ্রাম্যমান স্লোগান, টুকাই কর্মী, ক্ষমতায় যাবার জন্য আর ক্ষমতা আকড়ে ধরে রাখার জন্য অনঢ় অবস্থা মুছে দিচ্ছে নৈতিকতা, আদর্শ।

একে অপরের গীবত আর কুৎসা রটানো নতুন নতুন কৌশল তৈরি করে কর্মীদের মাঝে উপস্থাপন করাই যেন কথিত নেতাদের প্রধান কাজ।

এমন নেতা আর নেতৃত্ব আমরা চাইনি। আমরা চাই একজন আলোকিত মানুষ, একজন কিংবদন্তি নেতা।

About Bappy Chowdhury

Check Also

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী-শিশুকন্যা হত্যা: আসামির ফাঁসি কার্যকর

ফোকাস বাংলা ডেস্ক: গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে গতকাল রবিবার (১ নভেম্বর) মধ্যরাতে হত্যা মামলার এক কয়েদির ফাঁসি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *