শনিবার , অক্টোবর ১৬ ২০২১
   শনিবার|৩১শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ|১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
    ৯ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি
Breaking News

হালুয়াঘাট ২নং জুগলী ইউপিতে নতুন সম্ভাবনায় অধ্যক্ষ আব্দুল কাদির

ফোকাস বাংলা ডেস্ক: দিন যত যাচ্ছে ততই ঘনিয়ে আসছে স্থানীয় সরকারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন-২০২১। ইতোমধ্যে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ২২শে মার্চ ১ম ধাপে নির্বাচন-৭৫২টি, ৩১শে মার্চ ২য় ধাপে নির্বাচন-৭১০টি, ২৩শে এপ্রিল ৩য় ধাপে নির্বাচন-৭১১টি, ৭ই মে ৪র্থ ধাপে নির্বাচন-৭২৮টি, ২৮শে মে ৫ম ধাপে নির্বাচন -৭১৪টি, ৪ই জুন ৬ষ্ঠ ধাপে নির্বাচন -৬৬০টি।

 নির্বাচনের তারিখ ঘোষণাকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যে প্রার্থীদের দলীয় মনোয়ন পেতে তোর-জোর শুরু হয়ে গেছে। হালুয়াঘাটে  উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদগুলোর সম্ভাব্য প্রার্থীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন ভাবে গণসংযোগ শুরু করেছেন।

“গ্রাম হবে শহর” প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাস্তবায়নে হালুয়াঘাট ২নং জুগলী ইউপিতে নতুন সম্ভাবনায় অধ্যক্ষ আব্দুল কাদির।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনীতির আদর্শে বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের কার্যক্রম বুকে লালন করে ও  প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের অঙ্গীকার নিয়ে ২নং জুগলীতে নতুন সম্ভাবনায় অধ্যক্ষ আব্দুল কাদির জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন।

জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বেড়ে উঠা অধ্যক্ষ আব্দুল কাদির মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখে ইতিমধ্যে মানবিকতার পরিচয় দিয়েছেন। জুগলী ইউপিসহ আশেপাশের গ্রামের অনগ্রসর, শিক্ষায় পিছিয়ে পড়া ছেলে-মেয়েদের জন্য নিজ উদ্যোগে গ্রামের সুনামধ্যন্ন ব্যক্তিবর্গকে সঙ্গে নিয়ে ঘোষবেড়-জয়রামকুড়া নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন। নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়টিকে উচ্চ মাধ্যমিক এবং পরিশেষে হালুয়াঘাটের মধ্যে একমাত্র স্কুল এন্ড কলেজে (ঘোষবের-জয়রামকুড়া স্কুল এন্ড কলেজ)পরিণত করেন। বিদ্যালয়ে দারিদ্র ও মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের বিনা বেতনে পড়াশোনা এবং নিয়মিত উপবৃত্তি প্রদানের সু-ব্যবস্থা করেন। প্রতিটি গ্রামে ঘরে ঘরে শিক্ষার আলো পৌছিয়ে দেওয়ার কার্যক্রম আজও পরিচালনা করছেন।

সকল সফল মানুষের পেছনে আছে কিছু গল্প, তা অনেকটা রূপকথার মতো। আর সে সব গল্প থেকে মানুষ খুঁজে নেয় স্বপ্ন দেখার সম্বল, এগিয়ে যাওয়ার জন্য নতুন প্রেরণা। এলাকার হতদরিদ্র মানুষের উন্নয়নে তাঁর নিরন্তর প্রয়াস সব মহলেই প্রশংসা কুঁড়িয়েছে। জুগলী ইউনিয়নবাসীর দুর্ভোগে রাস্তাঘাট উন্নয়নে সহযোগিতাসহ বিশুদ্ধ পানি পানের জন্য গ্রামে-গ্রামে গভীর নলকূপের ব্যবস্থা করেন। মাদকমুক্ত সমাজগঠন, বাল্য বিয়ে প্রতিরোধসহ বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডের সাথে অতপ্রোতভাবে জড়িত রয়েছে অধ্যক্ষ আব্দুল কাদিরের নাম।

হালুয়াঘাটের আওয়ামী রাজনীতিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পরীক্ষিত সৈনিক আব্দুল কাদিরের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। তৎকালীন সাংস্কৃতিক ও সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী প্রমোদ মানকিনের ঘনিষ্ঠ রাজনীতিবিদ ছিলেন তিনি। বর্তমান হালুয়াঘাটের সংসদ সদস্য জনাব জুয়েল আরেং ও আওয়ামীলীগের অন্যান্য সংগঠনের সাথে হালুয়াঘাটের রাজনীতিতে সক্রিয় ভূমিকা পালন করছেন।

সরেজমিনে জানা যায়, জুগলী ইউনিয়নবাসী অধ্যক্ষ আব্দুল কাদিরের মতো মানবসেবায় নিয়োজিত একজন দক্ষ,শিক্ষিত ও সক্রিয় ব্যক্তিকে ইউনিয়ন পরিষদের গুরুত্বপূর্ণ আসনে দেখতে চান। দলীয় মনোনয় পেলে তিনি বিপুল ভোটে নিবার্চিত হবেন বলে ইউনিয়নবাসী জানান।

আসন্ন জুগলী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী অধ্যক্ষ আব্দুল কাদির জানান, ২নং জুগলী ইউনিয়ন পরিষদের জনগণের পাশে থেকে জনগণকে নিয়েই জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে চাই। জনসেবা ও ইউনিয়নের অবকাঠামোগত উন্নয়নই হবে আমার একমাত্র লক্ষ্য।

About Bappy Chowdhury

Check Also

এনটিআরসিএ’র আপিলের শুনানি শেষ, আদেশ কাল

সরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) কর্তৃক ১-১২তম নিবন্ধনধারীদের মধ্যে রিটকারী আড়াই হাজার জনকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *